ফখরুল-জাফরুল্লাহসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ

advertisement

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম, বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা মিজানুর রহমান মিনু ও সাভার গণবিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার দেলুয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে দণ্ডবিধির ১২৪(ক) ধরায় কিশোরগঞ্জের ৩নং সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য ও জয়বাংলা মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সভাপতি আকরাম হোসেন বাদল বাদী হয়ে গত বৃহস্পতিবার তাদের বিরুদ্ধে উল্লেখিত আদলতে এই অভিযোগটি দায়ের করেন।

সংশ্লিষ্ট আদালতের বিচারক মুহাম্মদ আব্দুন নূর শুনানি শেষে অভিযোগটি আমলে নিয়ে পাকুন্দিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি) তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন বলে বাদী পক্ষের আইনজীবী এ কে এম শফিকুল ইসলাম জানান।

পাকুন্দিয়া থানার ওসি মোহাম্মদ ইলিয়াস আজ রবিবার বেলা ১১টায় জানান, এ সংক্রান্ত আদালতের আদেশের কোনো কাগজপত্র এখনো তার হাতে পৌঁছেনি।

অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, আসামিগণ চলতি এপ্রিল মাসের বিভিন্ন তারিখে জাতীয় প্রেসক্লাব ময়দান, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন এলাকা ও পাকুন্দিয়া বটতলা মোড় এলাকায় উপস্থিত থেকে প্রকাশ্য রাজপথে নেমে আগুন জ্বলছে, আগুন জ্বলবে শ্লোগান এবং ৩০ সেকেন্ডের মধ্যে আন্দোলন করে সরকারের পতন ঘটিয়ে দিবে বলে হুমকি দেয়। তাছাড়াও আসামিরা পারস্পরিক যোগসাজশে বিভিন্ন স্থানে শ্লোগান দিয়ে আগুন দিচ্ছে এবং পুনরায় নির্বাচন না দিলে পুড়িয়ে বাংলাদেশ ধ্বংস করে দিবে, সরকারের পতন ঘটিয়ে দিবে বলে হুমকি দিচ্ছে। এরপর বিভিন্ন স্থানে যেমন চকরিয়া, সিলেট উপশহর, রাজধানী ঢাকাতে চলন্ত বাসে, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন, রাজধানীর কাওরান বাজার, বারিধারা, খিলগাঁও বাজার, পাকুন্দিয়ার বটতলা মোড় প্রভৃতি স্থানে আগুন জ্বলছে। এতে জনমনে ও রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ সেন্টারে আতংকের সৃষ্টি হয়েছে।

সরকার দলীয় লোক হিসেবে এবং দেশপ্রেমিক ও দেশের প্রতি অকুণ্ঠ ভালোবাসা থাকায় দেশ রক্ষার তাগিদ থেকে এই মোকদ্দমাটি রুজু করেছেন বলে বাদী আর্জিতে উল্লেখ করেন।

You might also like

advertisement