বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান

advertisement

গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলায় বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান নিয়েছে এক কলেজ ছাত্রী। হয় বউ হয়ে প্রেমিকের ঘরে ওঠবেন, নতুবা লাশ হয়ে কবরে যাবেন বলে জানান ওই তরুণী।

স্থানীয়রা জানায়, উপজেলার রাধাগঞ্জ ইউনিয়নের নারিকেলবাড়ী গ্রামের নুরুল হক খন্দকারের ছেলে সেনা সদস্য মিরাজ খন্দকারের সাথে মাদারীপুর জেলার সরকারি নাজিম উদ্দিন কলেজের অনার্স তৃতীয় বর্ষের এক ছাত্রীর গত তিন বছর ধরে প্রেমের সম্পর্ক ছিল।

গত বৃহস্পতিবার মিরাজ খন্দকার ওই ছাত্রীকে ফোন দিয়ে তার অন্যত্র বিয়ের কথা জানায়। ওই দিনই কলেজ ছাত্রী মিরাজ খন্দকারের বাড়িতে এসে বিয়ের দাবিতে অবস্থান নেয়। এ সময় মিরাজ বাড়ি থেকে পালিয়ে গেলে বিয়ে ভণ্ডুল হয়ে যায়।

অবস্থানকারী ওই তরুণী বলেন, মিরাজের বাড়ির পাশেই আমার মামা ও খালা বাড়ি। এখানে আসা যাওয়ার সুবাদে মিরাজের সাথে আমার প্রেমের সম্পর্ক হয়। সে বর্তমানে রাঙামাটি ক্যান্টনমেন্টে কর্মরত। এখান থেকে ছুটিতে এসে বিভিন্ন সময়ে মিরাজ আমাকে বিয়ের আশ্বাস দিয়ে শারীরিক সম্পর্ক করেছে। মিরাজ যদি এখন আমাকে বিয়ে না করে তবে এই বাড়িতেই আমি আত্মহত্যা করবো।

এ বিষয়ে মিরাজের বাবা নুরুল হকের কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি।

রাধাগঞ্জ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান অমৃত লাল হালদার বলেন, শনিবার গভীর রাত পর্যন্ত ছেলে এবং মেয়ে পক্ষ মিলে বিষয়টি নিয়ে সামাজিকভাবে বসেছিল। শুনেছি উভয় পক্ষই ছেলে মেয়ের বিয়ে দিতে একমত হয়েছে।

You might also like

advertisement