মোদি রোজ মিথ্যে কথা বলছেন

advertisement

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি নির্বাচনে পরাজিত হওয়ার ভয়ে ‘হারাতঙ্ক’ রোগে ভুগছেন আর উল্টোপাল্টা বকছেন। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শনিবার পশ্চিমবঙ্গের নদিয়া জেলার পানিঘাটায় এক নির্বাচনী সমাবেশে এমন মন্তব্য করেন।

মমতা বলেন, পাগলা কুকুর কামড়ালে জলাতঙ্ক রোগ হয়। আর নরেন্দ্র মোদি হারবে বলে ভয়ে চোখমুখ শুকিয়ে গেছে। আর হারাতঙ্ক রোগে ভুগছে। সেজন্য ওনার এখন হারাতঙ্ক হয়েছে। উনি এখন হারাতঙ্ক রোগে ভুগছেন।

তিনি আরো বলেন, ‘বিজেপি নেতাদের দুঃসাহস হয়েছে। সাহস থাকা ভালো কিন্তু দুঃসাহস থাকা ভালো না।

মোদিকে উদ্দেশ্য করে মমতা বলেন, গণপিটুনি, গো-রক্ষকের নামে মানুষ হত্যা, সংখ্যালঘু, দলিত, আদিবাসী, সাধারণ মানুষের ওপর বিজেপি অনেক অত্যাচার করেছে।

আসামে জাতীয় নাগরিকপঞ্জির (এনআরসি) কথা উল্লেখ করে মমতা বলেন, ‘আসামে ২২ লাখ হিন্দু বাঙালির নাম বাদ গেছে। ওরা বলছে বাংলায় এনআরসি করবে। আগে দিল্লি সামলাও, তারপরে বাংলার দিকে তাকাও।

তিনি তীব্র কটাক্ষের সুরে বলেন, ‘দিল্লির চেয়ার করছে টলমল, বিজেপি টলমল, আর বিজেপির ক্যাডাররা গদা আর তলোয়ার নিয়ে ঘুরছে। পাঁচ বছরে বেকারদের চাকরি হল না কেন? আপনি বছরে দুই কোটি বেকারের চাকরি দেয়ার কথা বলেছিলেন।

মমতা বিজেপি ও প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে আরো বলেন, মিথ্যে কথা বলতে বলতে ওদের জিভে পোকা পড়ে গেছে। রোজ মিথ্যে বলছে, রোজ কুৎসা করছে, রোজ অত্যাচার করছে, রোজ সন্ত্রাস করছে।

ভারতে লোকসভা নির্বাচনের প্রথম ও দ্বিতীয় দফার ভোটগ্রহণ প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে। দেশটিতে আরো পাঁচ দফায় ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। তৃতীয়, চতুর্থ, পঞ্চম, ষষ্ঠ ও সপ্তম দফার ভোট রয়েছে যথাক্রমে ২৩ এপ্রিল, ২৯ এপ্রিল, ৬ মে, ১২ মে ও ১৯ মে। এরপর ২৩ মে ফলাফল ঘোষণা করা হবে।

You might also like

advertisement