ভিয়েতনামে বাংলাদেশ দূতাবাসে বাংলা নববর্ষ উদযাপন

advertisement

ভিয়েতনামের রাজধানী হ্যানয়ে বাংলাদেশ দূতাবাসে বিপুল উৎসাহ ও উদ্দীপনা আর উৎসব মুখরতার মধ্য দিয়ে বাংলা নববর্ষ, ১৪২৬ উদযাপন করা হয়।

বাংলা নববর্ষ অনুষ্ঠানটি স্থানীয় অভিজাত প্যান প্যাসিফিক হ্যানয় হোটেলে ২৫ এপ্রিল অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে ’গেস্ট অফ অনার’ হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ভিয়েতনাম সরকারের উপ-প্রধানমন্ত্রী ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রীর স্ত্রী এম্বাসেডর নুয়েন নুয়েট না। বিশেষ অতিথি ছিলেন ভিয়েতনাম ন্যাশনাল এসেমব্লীর সদস্য এবং পররাষ্ট্র বিষয়ক স্টান্ডিং কমিটির সদস্য মিজ লে থু হা।

অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উচ্চ পদস্থ কর্মকতা বৃন্দ, ডিপ্লোমেটিক কোরের সদস্য বৃন্দ, ভিয়েতনামে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশীগণ, মিডিয়া ব্যক্তিত্ব, স্থানীয় গণ্যমান্য অতিথিবৃন্দ, দূতাবাসে কর্মরত কর্মকর্তা ও কর্মচারী এবং তাদের পরিবারের সদস্যরা এ সময় উপস্থিত ছিলেন। ভিয়েতনাম-এ নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত সামিনা নাজ আনুষ্ঠানিকভাবে স্বাগত বক্তব্যে বাংলা নববর্ষ ও পহেলা বৈশাখের ইতিহাস তুলে ধরেন।

তিনি বলেন, বাংলার ঐতিহ্যে ঘেরা বর্ণিল সংস্কৃতি স্বাগতিক দেশে তুলে ধরার জন্যই বাংলাদেশ দূতাবাস ভিয়েতনামের এই প্রয়াস। বাংলা নববর্ষ ধর্ম, বর্ণ, গোত্র – নির্বিশেষে সকলের এক বর্ণিল উৎসব। বাংলা নববর্ষ উদযাপন বাংলাদেশের একটি স্বকীয় ও সেক্যুলার পরিচয় তুলে ধরে বলে তিনি উল্লেখ করেন। বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী নকশী কাঁথা ও ঐতিহ্যবাহী হস্তশিল্প দিয়ে আয়োজন স্থানটি সুসজ্জিত করা হয় যা সকলের মাঝে ব্যাপক আগ্রহের সৃষ্টি করে।

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের উপস্থিত ভিয়েতনামী ও প্রবাসী বাংলাদেশীরা সমবেত কণ্ঠে বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথের বিখ্যাত গান ”এসো হে বৈশাখ এসো এসো …. ” দিয়ে শুরু করা হয়। এর পর বাংলাদেশী এবং ভিয়েতনামী শিল্পীর নৃত্য, গান এবং কবিতা আবৃতির মূর্ছনায় পুরো অনুষ্ঠানটি ছিলো ব্যাপক উপভোগ্য ও সমাদৃত। অনুষ্ঠানের শেষে ঐতিহ্যবাহী বাঙ্গালি খাবারে আমন্ত্রিত অতিথিদের আপ্যায়িত করা হয়। বিজ্ঞপ্তি

You might also like

advertisement