শেরেবাংলার হাত ধরেই বাঙালি জাতির উন্মেষ

advertisement

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ. ক. ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, শেরে বাংলা এ. কে. ফজলুল হকের হাত ধরেই বাঙালি জাতির উন্মেষ হয়েছে। তার সুযোগ্য নেতৃত্ব বাঙালি জাতিকে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে শিখিয়েছে।

শনিবার জাতীয় নেতা শেরে বাংলা এ. কে. ফজলুল হকের মাজারে ৫৭তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে তার কর্মময় জীবনের ওপর আলোচনা, মাজারে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও মাজার জেয়ারত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতা করছিলেন মন্ত্রী। খবর বাসসের

মোজাম্মেল হক বলেন, ‘বাঙালি জাতির মুক্তির জন্য শেরে বাংলা এ কে ফজলুল হক, হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী এবং তাদের স্নেহধন্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভূমিকা ইতিহাসে অমর হয়ে থাকবে। ব্রিটিশ আমলে মুসলমানদের প্রতি বিমাতাসুলভ আচরণ করা হতো। এ সকল অন্যায়ের বিরুদ্ধে শেরে বাংলা আজীবন সংগ্রাম করেছেন।

শেরে বাংলা আজীবন গরীব, দুঃখী ও মেহনতি মানুষের কল্যাণে কাজ করেছেন- এমন মন্তব্য করে মন্ত্রী বলেন, তিনি সর্বভারতীয় কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক আবার মুসলিম লীগের সভাপতির দায়িত্বও পালন করেন।

মোজাম্মেল হক বলেন, শেরে বাংলা লাহোর প্রস্তাব উত্থাপন করে ইতিহাসে অমর হয়ে আছেন। জমিদারদের হাত থেকে গরীব ও মধ্যবিত্ত শ্রেণীর মানুষদের বাঁচানোর জন্য তিনি ঋণ সালিশি বোর্ড গঠন করেন। স্বাধীন বাংলাদেশ কায়েম করার জন্য তিনি অনেক ত্যাগ স্বীকার করেছেন। তিনি একজন উঁচু মানের আইনজীবী ছিলেন। আইন পেশার আয়ের অধিকাংশই অসহায় সাধারণ মানুষের জন্য ব্যয় করেছেন।

কবি মুহম্মদ আবদুল খালেকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাবেক মন্ত্রী এবং অন্যতম সংবিধান প্রণেতা ব্যারিস্টার এম আমিরুল ইসলাম। শেরে বাংলার দৌহিত্র এ. কে. ফাইয়াজুল হক রাজুসহ অন্যরা।

You might also like

advertisement