স্বামীকে বেঁধে স্ত্রীকে দলবদ্ধ ধর্ষণ,আটক ৪

advertisement

সাভারের আশুলিয়ায় একটি নির্জন বাঁশঝাড়ে স্বামীকে বেঁধে রেখে স্ত্রীকে দলবদ্ধভাবে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত চারজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ভুক্তভোগী ওই গৃহবধূকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে পাঠানো হয়েছে। সোমবার সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটার পর আশুলিয়ার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে অভিযুক্তদের গ্রেফতার করে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃত ধর্ষকরা হলো- ঢাকা জেলার আশুলিয়া থানাধীন কাঠগড়া (উত্তরপাড়া) এলাকার সোহরাব শিকদারের ছেলে নূর মোহাম্মদ পলাশ (২১), একই এলাকার সাহাবুদ্দীনের ছেলে মো. সুজন শিকদার (২০) ও হাজী আ. সাত্তারের ছেলে মো. ফেরদৌস (২৫)। অপর ধর্ষক ধামরাই থানার জাঙ্গালিয়া গ্রামের মৃত মোহাম্মদ আলীর ছেলে কবির হোসেন (৩০)। তবে এ ঘটনায় অভিযুক্ত আ. রাজ্জাক (৩০) নামের আরও একজন পলাতক রয়েছে।

পুলিশ জানায়, সোমবার সন্ধ্যায় কাঠগড়া এলাকায় স্বামীকে নিয়ে ভাড়া বাসা খুঁজতে যায় ওই গৃহবধু। এ সময় একা পেয়ে স্থানীয় বখাটেরা তাদের গতিরোধ করে। পরে পাশের একটি নির্জন বাঁশঝাড়ে নিয়ে স্বামীকে বেঁধে রেখে স্ত্রীকে ধর্ষণ করে ৫ বখাটে। এ ঘটনায় অভিযোগ পেয়ে রাতেই আশুলিয়ার বিভিন্ন স্থান থেকে ৪ জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

আশুলিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জাবেদ মাসুদ বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃতরা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের পর গ্রেফতারকৃতদের আদালতে পাঠানো হয়েছে। সেই সঙ্গে অভিযুক্ত আরও একজনকে গ্রেফতারের জন্য বিভিন্ন স্থানে অভিযান অব্যাহত আছে। ভুক্তভোগী নারীকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে পাঠানো হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, গ্রেফতারকৃত ধর্ষকদের বিরুদ্ধে এলাকায় মাদক ব্যবসা, চুরি, ছিনতাইসহ বিভিন্ন ধরনের অপরাধের সঙ্গে জড়িত থাকার কথা পুলিশকে অবহিত করেছে। তবে তাদের ভয়ে আগে কেউ থানায় মামলা দায়ের করেননি।

You might also like

advertisement