পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ভাংচুর, অগ্নিসংযোগ, হামলা- লুটপাট

সাগর আকন,বরগুনা :

advertisement

জমি-জমা নিয়ে পূর্ব শত্রুতার জেরে বাড়ি ভাংচুর, হামলা, অগ্নিসংযোগ ও লুটপাটের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় গত রোববার সকালে বিচারের দাবীতে বরগুনা পুলিশ সুপার বরাবরে একটি লিখিত আবেদন করেছেন ভুক্তভোগী চরকলোনী এলাকার বাসিন্দা মৃত আলী আহম্মদের মেয়ে জেসমিন সুলতানা।

অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেন, রফিকুল ইসলাম টিপু, মাজেদা বেগম, মোঃ আহসান কবির ও ইয়াসমিন সুলতানা রেখা মিলে তার বাড়ীতে ভাংচুর, হামলা, লুটপাট ও অগ্নিসংযোগ করেছে। গত (১১ মে) শনিবার সকাল ১১ টার দিকে এ ঘটনাটি ঘটে।

অভিযোগকারী জেসমিন সুলতানা সাংবাদিকদের জানান, আমি বরগুনা পৌরসভার চরকলোনী এলাকার বাসিন্দা। আমার বাবা ২০০৪ ইং সালে মৃত্যুর পর পিতার ওয়ারিশস সূত্রে ০.০১০৯ শতাংশ জমির মালিক হই এবং আমার মা মাজেদা বেগমের নগদ টাকার প্রয়োজন হওয়ায় সে আমার নিকট ০.০০৭৫ শতাংশ জমি বিক্রি করে। যা রেজিস্ট্রি করার সময় আর্থিক সুবিধার জন্য হেবা দলিল লেখা হয়। একুনে ০.০১৮৪ শতাংশ ভূমিতে মালিক থেকে ২০০৫ ইং সন হইতে পিতার ওয়ারিশ সূত্রে এবং হেবা দলিলের ভূমিতে ওয়াল করা টিন সেট সেমি পাঁকা বসতঘর নির্মাণ করে বসবাস করে আসছি।

বিগত ২০১৭ সালের জানুয়ারি মাসে আমার বসতঘরের সংস্কারের জন্য কাজ শুরু করলে উক্ত বিবাদীগণ ঘর সংস্কারে বাঁধা প্রদান কর। সে সময় বরগুনা সদর থানার এসআই মাহমুদ উভয় পক্ষের শালিস মনোনয়ন করেন এবং বৈঠকের সিদ্ধান্ত হয়। পরবর্তীতে জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক অচলনামা সহকারে শালিস বৈঠক করেন এবং রোয়েদাদ হয়।

বিবাদীপক্ষ শালিস না মেনে আমার ঘর সংস্কার করতে দেয়না। তাই নিরুপায় হয়ে আমি বরগুনা জেলা চেয়ারম্যানের নিকট আইনি সহায়তা পাবার জন্য আবেদন করলে সেই আবেদনটি এএসপি সার্কেলের নিকট প্রেরণ করেন চেয়ারম্যান। পরবর্তীতে সেই দরখাস্তটি ওসি আরিফুজ্জামানকে ফোরম্যান মনোনয়ন করে শালিস করা হয়। শালিসদাররা দীর্ঘ এক বছর পরে রোয়েদাদ দেন। উভয় পক্ষ সিদ্ধান্ত মেনে নেবার পর বিবাদীপক্ষ আমার অনুপস্থিতিতে গত শনিবার সকাল ১১ টার দিকে অন্যায়ভাবে আমার বসতঘর ভাংচুর, ঘরের মালামাল লুটপাট এবং কারেন্টের মিটারে আগুন দেয়।

এসময় তারা আমার ঘর থেকে নগদ ৫২ হাজার টাকা লুট করে নেয়। এতে আমার আর্থিক ক্ষতির পরিমান দাড়িয়েছে ১ লাখ ৮২ হাজার টাকা। বিবাদীগন আমার পরিবারের উপরে মানসিক ও সামাজিক নির্যাতন অব্যাহত রেখেছে। বিগতদিনে যারা এ বিষয়ে শালিশী করেছেন তাদের কাছে বিচার দিয়েও আমি কোনো প্রতিকার পাইনি। তাই প্রশাসনের কাছে বিচারের দাবী জানাই। যাতে আমার পরিবার নিয়ে বসতঘরটি সংস্কার করে স্থায়ীভাবে সমাজে বেঁচে থাকতে পারি।বরগুনায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে বাড়ি ভাংচুর, অগ্নিসংযোগ, হামলা- লুটপাট

You might also like

advertisement