সাফা মক্কা নার্সিং ইনস্টিটিউট দখলের চেষ্টার অভিযোগ

সিরাজগঞ্জ থেকেঃ

advertisement

আব্দুল হামিদ মিজান, হোল্ডি নং-৩৩৭/১, ৪ তলা বিল্ডিং ও ছাত্রী হোস্টেল ৫ বছরের জন্য ভাড়া নেওয়া দেয়। পরবর্তীতে ২০ এপ্রিল ২০১৭ইং পরিচালনা পষদ গঠন করা হয় এবং পরিচালনা পষদের আলোচনা এক্সিম ব্যাংক সিরাজগঞ্জ শাখায় সাফা মক্কা নার্সিং ইনস্টিটিউটের নামে ১১০১৩১০০০২১৪১৯ নং সঞ্চয়ী খোলা হয়।

পরে ১১/১১/২০১৭ইং তারিখে ৬৮/২০১৭নং স্মারকে নাম পরিবর্তনের জন্য রেজিস্ট্রার ঢাকা বরাবর আবেদন করা হয়। সাফা মক্কা নার্সিং ইনস্টিটিউটে ২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষে ৩৭ জন এবং ২০১৮-২০১৯ ৪০ জন ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি হয়। এই দুই বছরে প্রতিষ্ঠানের লাভের আশায় সাফা মক্কা নার্সিং ইনস্টিটিউটের মালিকানা হস্তান্তর করা স্বত্বেও আব্দুল হামিদ মিজান গত ১৭ জানুয়ারী ২০১৯ইং তারিখে মালিকানা দাবী করে অধ্যক্ষ বরাবর ৫৪নং স্মারকে পত্র পাঠায়। পরে সাফা মক্কা নার্সিং ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ রশিদা খাতুন নার্সিং কাউন্সিল ঢাকা বরাবর অবগত করেন।

নার্সিং কাউন্সিল গত ৩১ জানুয়ারী ২০১৯ তারিখে ৪ তলা বিশিষ্ট ভবন ও ছাত্রী হোস্টেলের ভাড়া বাবদ মাসিক ৫০ হাজার টাকা পরিশোধ করিয়া আসছে একটি রিসিফ গ্রহণ করে। পরিচালক সোহেল রানা আরো জানান, আমরা দীর্ঘ দুই বছর যাবত আমরা সুনামের সহিত প্রতিষ্ঠানটি পরিচালনা করে আসছি। কিন্তু গত কয়েক দিন আগে আব্দুল হামিদ মিজান আবারো মালিকানা দাবী করেন আমাদের প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করে।

You might also like

advertisement