গ্যালারিতে বিরাট-রোহিত পত্নীর শীতলযুদ্ধ

advertisement

বিশ্বকাপে প্রায় প্রতিটি দলের খেলোয়াড়দের সঙ্গেই ইংল্যান্ডে পাড়ি জমিয়েছেন তাদের পরিবারের সদস্যরা। ব্যাতিক্রম নন ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও রোহিত শার্মা। তাদের গ্যালারিতে বসে উৎসাহ দিতে মাঠে হাজির ছিলেন বিরাটপত্মী আনুশকা শর্মা এবং রোহিতপত্মী রিতিকা সাজদে।

তবে একে অপরকে মোটেই সইতে পারছেন না।

ভারতীয় দৈনিক ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের খবর, লিগ পর্বের শেষ ম্যাচে ভিআইপি গ্যালারিতে বসে খেলা দেখছিলেন বিরাটপত্মী আনুশকা শর্মা এবং রোহিতপত্মী রিতিকা সাজদে।

এ দুজন খুব কাছাকাছি বসে খেলা দেখলেও পুরো ম্যাচে একবারও কথা বলেননি একে অপরের সঙ্গে। ইশারাতেও কেউ কাউকে সমীহ করেননি। এ বিষয়টি নিয়ে ক্রিকেট মহল বিস্ময় ছড়িয়েছে। সঙ্গে বেশকিছু গুজবও রটেছে।

যদিও রোহিত শর্মা ও বিরাট কোহলির মধ্যে পারস্পারিক সম্পর্ক বা বোঝা পড়া বেশ ভালো। তা ক্রিকেটবিশ্বের সবাই স্বীকার করেন।

কিছুদিন আগেও রোহিতকে এই মুহূর্তে বিশ্বের সেরা ব্যাটসম্যান বলে উচ্চারণ করেছেন অধিনায়ক কোহলি। রোহিতও অধিনায়কের সিদ্ধান্তে আস্থা ও সম্মান দিয়ে যাচ্ছেন। তবে তাদের স্ত্রীদের মধ্যে দেখা গেল চরম বৈরীতা।

যদিও সরাসরি কেউ কাউকে ঘায়েল করেননি তবে একে অপরের সঙ্গে সৌজন্যতাও প্রদর্শন করেননি।

পুরো ম্যাচজুড়ে গ্যালারিতে মুখ ঘুরিয়েই থাকলেন একে অন্যের থেকে। একাধিকবার ক্যামেরা তাদের দিকে ফোকাস করলেও পরস্পরের সঙ্গে কথা বলতে দেখা যায়নি তাদের।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস জানায়, গত ম্যাচে রোহিত শর্মা যখন আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরছিলেন, তখন স্ত্রী রিতিকা দাঁড়িয়ে অভিবাদন জানাচ্ছিলেন স্বামীকে। সেই সময়ে আনুশকার শারীরিক ভাষায় কোনো রকম বাড়তি উচ্ছ্বাস দেখা যায়নি।

কিন্তু বিরাট কোহলি মাঠে নামার সময় আনুশকার চোখে মুখে ছিল খুশির ঝলক। তবে রোহিতের স্ত্রীকে সে সময় অনেকটাই নির্বিকার ছিলেন।

সবমিলিয়ে মাঠে দুই তারকাকে নিয়ে বেশ উল্লাস ও সমর্থন চলছে ভারতীয় দর্শকদের মধ্যে তখন হঠাৎই দুই তারকার স্ত্রীদের মধ্যে একটা ঠাণ্ডা লড়াই দেখা গেছে।

You might also like

advertisement