অবিরাম বৃষ্টি আরও দুইদিন

advertisement

আষাঢ় মাস মানেই বর্ষা। কিন্তু শুরুর দিকে বৃষ্টির দেখা পায়নি মানুষ। উল্টো গরমে হাঁসফাঁস করতে হয়েছে পুরোটা সময়। কিন্তু বর্ষার মাঝামাঝি সময়ে এসে ঢাকাসহ সারাদেশের আকাশ ঝরাচ্ছে অঝোর ধারায় বৃষ্টি। আর দু’দিনেও এই বৃষ্টি থামবে না বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর। তবে শুধু বৃষ্টিই না হতে পারে ব্যাপক ভারি বৃষ্টি।

এ বিষয়ে আবহাওয়াবিদ বজলুর রশিদ বলেন, আগামী দুদিন একই রকম বৃষ্টি হতে পারে। দিনের বিভিন্ন সময় ভারী বৃষ্টিপাত হওয়ার সম্ভাবনাও ব্যাপক। বর্ষাকালীন মৌসুমী বৃষ্টির এই প্রভাব শ্রাবণের শুরুতেও থাকবে। এলাকার নদীবন্দরগুলোকে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

শুক্রবার বিকেল তিনটার পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, ঢাকা, ময়মনসিংহ, রাজশাহী, রংপুর, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনে ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণ হতে পারে।

শুক্রবার (১২ জুলাই) ৫০ মিলিমিটারেরও বেশি বৃষ্টি হয়েছে ঢাকায়। এছাড়া, বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা থেকে শুক্রবার সকাল ছয়টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় রাঙামাটিতে ১৬৫, হাতিয়ায় ১৩৫, সীতাকুণ্ডে ১২৯, টাঙ্গাইলে ১২২, কুতুবদিয়ায় ১১১, সন্দ্বীপে ১০১ এবং চট্টগ্রামে ৮৫ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে। সকাল ছয়টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত পঞ্চগড়ে ৯৬ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে।

শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দরগুলোর জন্য আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রংপুর, ময়মনসিংহ, সিলেট, টাঙ্গাইল, রাজশাহী, বগুড়া, পাবনা, ঢাকা, ফরিদপুর, মাদারীপুর, যশোর, কুষ্টিয়া, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম এবং কক্সবাজার অঞ্চলের ওপর দিয়ে দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে অস্থায়ীভাবে দমকা অথবা ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টি হতে পারে।

You might also like

advertisement