মমতাকে কংগ্রেসের সভাপতি করার প্রস্তাব

advertisement

দেশের গণতন্ত্র বাঁচাতে কংগ্রেসের দ্বায়িত্ব নিতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে প্রস্তাব দিলেন বিজেপির রাজ্যসভার এমপি সুব্রহ্মণ্যম স্বামী। তিনি দাবি জানিয়ে বলেন, বিজেপির একচেটিয়া রাজত্ব চললে বিপন্ন হবে দেশের গণতন্ত্র।

ইউনাইটেড কংগ্রেসের সভানেত্রী হোন মমতা। ইউনাইটেড কংগ্রেস বলতে তিনি এনসিপি, কংগ্রেস ও তৃণমূল কংগ্রেসকে বুঝিয়েছেন।

শুক্রবার (১২ জুলাই) টুইটারে সুব্রহ্মণ্যম স্বামী লেখেন, ‘গোয়া ও কাশ্মীরের পরিস্থিতি দেখার পর আমার মনে হচ্ছে, দেশে একটাই দল বিজেপি থাকলে বিপন্ন হবে দেশের গণতন্ত্র।’

তাহলে কী উপায়? এই প্রশ্ন রেখে তিনি আবার এর একটি সমাধানও দিলেন। স্বামী টুইটারে লিখেন, ‘ইতালিয়ান ও পরিবারের লোকেরা বিদায় নিন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ইউনাইটেড কংগ্রেসের সভানেত্রী করা হোক। কংগ্রেসের সঙ্গে মিশে যাওয়া উচিত এনসিপিরও।’

ভারতীয় গণমাধ্যমে বলা হয়েছে, দেশের সাম্প্রতিক রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে সুব্রহ্মণ্যম স্বামী কংগ্রেসের অবস্থা বোঝাতে চেয়েছেন। গোয়ায় কংগ্রেসের ১৫ বিধায়কের মধ্যে ১০ জন বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন।

অন্যদিকে, কর্নাটকে প্রথমে ১২ বিধায়ক ইস্তফা দিয়েছিলেন কর্নাটক বিধানসভার অধ্যক্ষের কাছে। যাদের অধিকাংশই ছিলেন কংগ্রেসের। এর পরবর্তী পর্যায়ে একাধিক কংগ্রেস বিধায়ক সেই পথ ধরেন। কার্যত সংখ্যালঘু হয়ে পড়েছে কর্নাটকের কংগ্রেস জেডিইউ জোট সরকার। অন্যদিকে লোকসভা নির্বাচনে কংগ্রেসের ফল যেমন খারাপ, এনসিপির ফলও খারাপ। সেই তুলনায় ভালো ফল করেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বাধীন তৃণমূল কংগ্রেস। বিজেপি বিরোধী রাজনীতিকে কটাক্ষ করতে গিয়ে তাই কংগ্রেসের সঙ্গে এনসিপি এবং তৃণমূলের মিশে যাওয়ার কথা বলেছেন তিনি।

You might also like

advertisement