ভারী বর্ষণের সঙ্গে পাহাড় ধসে শঙ্কা

advertisement

বাংলাদেশে মৌসুমি বায়ু সক্রিয় থাকার কারণে রবিবার সকাল ১০টা থেকে সোমবার সকাল ১০টার মধ্যে রংপুর, ময়মনসিংহ, সিলেট এবং চট্টগ্রাম বিভাগের কোথাও কোথাও ভারী (৪৪-৮৮ মি.মি.) থেকে অতি ভারী (৮৯ মি.মি.) বর্ষণ হতে পারে। অতি ভারী বৃষ্টির কারণে চট্টগ্রাম বিভাগের পাহাড়ি এলাকায় কোথাও কোথাও ভূমিধসের আশঙ্কা রয়েছে। রবিবার সকালে আবহাওয়া অধিদপ্তর এক বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানায়।

এতে আরও বলা হয়, ওই চার বিভাগ ছাড়া রাজশাহী, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারী ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।সেই সাথে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরণের ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণ হতে পারে। তবে আগামী তিনদিনের মধ্যে বৃষ্টিপাতের প্রবনতা হ্রাস পেতে পারে। অন্যদিকে সারাদেশে দিনের এবং রাতের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর আরো জানায়, শনিবার সকাল থেকে রবিবার সকাল ৬টা পর্যন্ত ডিমলায় সর্বোচচ ১৮৯, টাঙ্গাইল ১৪৩, চট্টগ্রামে ১৪১, সীতাকুণ্ডে ১৩১, তেঁতুলিয়া ১৭৬, সৈয়দপুর ১১৮, কুতুবদিয়া ১০২ ও ঢাকায় ৬৬ মি.মি বৃষ্টি রেকর্ড করা হয়।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়, মৌসুমি বায়ু অক্ষের বর্ধিতাংশ পাঞ্জাব, হরিয়ানা, উত্তর প্রদেশ, হিমালয়ের পাদদেশীয় পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে।এর একটি বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশে সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে মাঝারী অবস্থায় বিরাজমান।

এদিকে শনিবার রাতে কক্সবাজারের চকরিয়ায় স্বামী-স্ত্রী ও বান্দরবানের লামায় পাহাড় ধসে এক নারী মারা গেছেন।

You might also like

advertisement